All for Joomla The Word of Web Design

আরবের দুম্বা সমাচার

আমাদের সমাজে দুম্বা শব্দটির ভাল একটি ইমেজ আছে। হাজীরা দুম্বা দিয়ে কোরবানি দেয়। ইব্রাহিম (আঃ) পুত্র ইসমাইলের পরিবর্তে ‘দুম্বা’ জবাই করেছিলেন। বাংলাদেশে থাকতেও সৌদি থেকে পাঠানো দুম্বার গোশত খেয়েছি। সৌদি আরবেও খেয়েছি। একটু গন্ধ আছে। যারা খাইয়েছে তারা বলেছে দুম্বার গোশত। আমিও দুম্বার গোশত মনে করেই খেয়েছি। সৌদি আরবে গবাদি পশুর খোয়াড় ও পাল দেখেছি। সেখানে নানা জাতের ছাগল ও ভেড়া দেখেছি। কিন্তু ‘দুম্বা’ চেনা হয়নি।

কোরবানি সংক্রান্ত ফতোয়াগুলো অনুবাদ করতে গিয়ে দেখি বাংলায় যারা কোন্‌ কোন্‌ পশু দিয়ে কোরবানি করা যাবে সে শ্রেণীর মধ্যে উট, গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া ও দুম্বার কথা লিখেন। কুরআনের আয়াতে “বাহিমাতুল আনআম” শব্দদ্বয়ের ব্যাখ্যামূলক অনুবাদ তারা এভাবে করেছেন। কিন্তু, আরবী ব্যাখ্যাতে শুধু তিন শ্রেণীর কথা আছে- উট, গরু ও গানাম (ছাগল ও ভেড়া)। আরবী ‘গানাম’ শব্দ একত্রে ‘ছাগল ও ভেড়া’ এ দুই শ্রেণীর পশুকে বুঝায়।(এক শব্দে গানামের কি অনুবাদ করা যায় তা এখনও খুঁজে বেড়াচ্ছি। কারো জানা থাকলে জানালে তার জন্য দুআ করব।) কিন্তু অনুবাদকগণ ‘মহিষ’ ও ‘দুম্বা’ পেলেন কোথায়?  সেটা সন্ধান করতে গিয়ে মহিষ (আরবীতে جاموس) এর ব্যাপারে পাওয়া গেল ফিকাহবিদদের মধ্যে যারা ‘মহিষ’কে গরুর একটি প্রকার মনে করেন; তারা ‘মহিষ’ দিয়ে কোরবানি দেয়া বৈধ বলেন। বুঝা গেল গরু-মহিষ একই জাত।

আমাদের সমাজের প্রক্ষাপটে মহিষের কথা অনুবাদকগণ স্পষ্ট করে উল্লেখ করে থাকেন।  কিন্তু, দুম্বার বিষয়টির সমাধান পাচ্ছিলাম না। আর দুম্বাকে আরবীতে কি বলে সেটাও নিশ্চিত হতে পারছিলাম না। খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে বাংলা এক অভিধান থেকে বের করলাম ‘দুম্বা’ হচ্ছে এক জাতীয় ভেড়া; এটি ফার্সি শব্দ। এর মাধ্যমে নিশ্চিত হলাম আসলে কুরবানীর পশু তিন প্রকার এটাই ঠিক। উট, গরু ও গানাম (ছাগল ও ভেড়া)। যারা ‘ভেড়া’ লেখার পর আবার দুম্বা লিখেছেন তারা একই জাতের পশুকে দুইবার উল্লেখ করেছেন। এটা বর্জনীয়। বোধহয় এ জটিলতার উদ্ভব হয়েছে এভাবে: আরবী كبش শব্দের অনুবাদ ফার্সি দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ‘দুম্বা’ করা এবং দুম্বা আসলে কোন ধরণের প্রাণী তা নির্দিষ্ট করতে না পারার কারণে। অন্যদের অনুকরণে আমি নিজেও كبش শব্দের অনুবাদ ‘দুম্বা’ লিখে আসছিলাম। কিন্তু, সেটা যে নির্দিষ্ট বয়সী ভেড়ার বিশেষ নাম তা জানা ছিল না। আরবী ‘আল-মাউজু’ ওয়েব সাইটের সুবাদে জানলাম ভেড়া ‘পূর্ণ বয়স্কে’ পৌঁছলে বা যৌন সক্ষম হলে তাকে বলা হয় كبش। এভাবে বয়স অনুপাতে ছাগল ও ভেড়ার ভিন্ন ভিন্ন নাম রয়েছে।

ছাগল ও ভেড়া সংক্রান্ত পরিভাষাগুলো নিম্নরূপ:
আরবী غنم শব্দের অর্থ- ভেড়া ও ছাগল। এছাড়াও আরবী ضأن, ماعز, خرفان, أكباش, نعاج, ইত্যাদি শব্দ দিয়ে ‘গানাম’ শ্রেণীর প্রাণীকে বুঝানো হয়। غنم শব্দটি বহুত্ব অর্থজ্ঞাপক। এর এক বচন নেই। বহুত্ব বুঝাতে কখনও কখনও أغنام শব্দটিও ব্যবহার করা হয়।
ভেড়া- ضائن বহুবচনে- ضَأن ভেড়াকে خِرافও বলা হয়।
ভেড়ী- ضائنة
ছাগল- ماعز
ছাগী- ماعزة

বয়সভেদে ভেড়ার বিভিন্ন নাম:
নবজাতক নর ভেড়াকে বলা হয়- سَخْلة
একটু বড় হলে এক বছরের আগ পর্যন্ত নর ভেড়াকে বলা হয়- حَمَل
এক বছর পূর্ণ হয়েছে এমন ভেড়াকে বলা হয়- خَرُوف
যৌন সক্ষম হলে সে ভেড়াকে বলা হয়- كَبش
কখনও কখনও خروف ও كبش কে شاة বলা হয়।
নবজাতক ভেড়ীকেও سخلة বলা হয়।
ভেড়ী একটু বড় হলে বলা হয়- جِذعة।
বয়স এক বছর পার হলে বলা হয়- نعجة। এটাকে شاة ও বলা হয়।
বয়স ভেদে ছাগলের পরিচিতিঃ
নর ছাগল- ماعز । বহুবচনে مَعْز ও عَنْز।
ছাগী- ماعزة।

নবজাতক ছাগ ও ছাগীর ক্ষেত্রে ভেড়ার মত একই শব্দ ব্যবহার করা হয়- سَخْلة। অনুরূপভাবে এক বছর পার হয়েছে এমন ছাগ-ছাগীর ক্ষেত্রেও ভেড়া-ভেড়ীর মত- شاة শব্দটি ব্যবহার করা হয়।
নর ছাগল জন্মের পর একটু বড় হলে বলা হয়- جَدي।
নর ছাগলের বয়স এক বছর পার হলে বলা হয়- تَيس।
আর ছাগী জন্মের পর একটু বড় হলে বলা হয়- عَنَزة।

আমরা ছোট বেলায় পড়ে এসেছিলাম شاة অর্থ ছাগল। এখন দেখি সে তথ্যও কিছুটা সংশোধন করতে হবে। কারণ شاة শব্দটি এত ব্যাপক অর্থবোধক যে, এটি ছাগল-ভেড়া এবং এ দুই প্রাণীর নর-মাদী উভয়টাকে বুঝায়। তাছাড়া নির্দিষ্ট বয়সেরও ইঙ্গিত বহন করে।
অনুরূপভাবে سَخْلة শব্দটিও ব্যাপক অর্থবোধক। একই সাথে ভেড়া-ভেড়ী ও ছাগ-ছাগীর নবজাতককে বুঝায়।

লেখকঃ মুহাম্মদ নূরুল্লাহ্‌ তারীফ
কিং সউদ বিশ্ববিদ্যালয়, রিয়াদ, সৌদি আরব।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password

শিরোনাম:
  ❖   পরকালের জন্য হোক কিছু সঞ্চয়   ❖   কোনো এক ক্ষণে   ❖   ঠিকানার শেষ প্রান্তে   ❖   অন্যরকম বিয়ে   ❖   ভাগ্যকে আশীর্বাদ করুন দোষারোপ নয়   ❖   সত্যের পথে   ❖   কওমি সনদ, হাইআতুল উলইয়া, বেফাক ও অন্যান্যদের দলাদলি: একটি পর্যালোচনা   ❖   ২০০১ সাল থেকে এ পর্যন্ত যুদ্ধের পেছনে আমেরিকার খরচ ৫.৬ ট্রিলয়ন ডলার!   ❖   ভয়ঙ্কর সামাজিক ব্যাধি পরকীয়া   ❖   আরবের দুম্বা সমাচার